মঙ্গলবার , জুলাই ১৬ ২০১৯
Breaking News

শিশু আসামির পরিচয় প্রকাশে গণমাধ্যমকে সতর্কতা

বাংলার আলো ডেস্ক: আদালতে বিচারাধীন কোনো মামলায় শিশুর নাম, ঠিকানা, ছবিসহ তার পরিচয় প্রচার-প্রকাশের বিষয়ে গণমাধ্যমকে সতর্ক করেছেন হাইকোর্ট।

১২ ফেব্রুয়ারি, মঙ্গলবার এ বিষয়ে জারি করা রুল শুনানি শেষে সব গণমাধ্যমকে সতর্ক করে রায় দেন বিচারপতি শেখ হাসান আরিফ ও বিচারপতি রাজিক আল জলিলের হাইকোর্ট বেঞ্চ।

এই রায়ে বলা হয়েছে, শিশু অপরাধীর একটি খবর প্রকাশের সময় নাম ঠিকানা এবং শব্দ চয়নে ইংরেজি দৈনিক ডেইলি স্টার আইন বহির্ভূত কাজ করেছে। এ বিষয়ে পত্রিকাটিকে সতর্ক করেছেন আদালত। একই সঙ্গে সকল গণমাধ্যমকে বলা হয়েছে, খবর প্রচারের সময় যেন শিশুদের নাম ঠিকানা প্রকাশ না পায়- সে বিষয়টি মেনে চলতে।

রায় ঘোষণার পর রিটকারী ব্যারিস্টার সৈয়দ সাইয়্যেদুল হক সুমন সাংবাদিকদের বলেন, গত ৫ নভেম্বর ইংরেজি দৈনিক ডেইলি স্টার ‘বয় গেটস টেন ইয়ার্স ফর কিলিং ক্লাসমেটস’ শিরোনামে একটি খবর প্রকাশ করে। সে খবরে শিশু অপরাধীর পরিচিতি প্রকাশ করা হয়েছে; যা স্পষ্টত শিশু আইন, ২০১৩ এর ২৮ ধারার লঙ্ঘন।

এ কারণে হাইকোর্টে রিট করা হয়। এ রিটের শুনানি নিয়ে গত বছরের ১৯ নভেম্বর শিশু আইন, ২০১৩ এর ২৮ ধারা অনুসারে শিশু অপরাধীর নাম, ঠিকানা, ছবিসহ তার পরিচিতি সংবাদপত্র, ম্যাগাজিনসহ যেকোনো সংবাদ মাধ্যমে প্রচার-প্রকাশ বন্ধের নির্দেশ কেনো দেওয়া হবে না, তা জানতে রুল দেন হাইকোর্ট। একইসঙ্গে ডেইলি স্টারে প্রকাশিত সংবাদের বিষয়ে ১৫ দিনের মধ্যে ব্যাখ্যা দিতে ইংরেজি পত্রিকাটির সম্পাদককে বলা হয়।

ব্যারিস্টার সুমন পরে জানান, আইনে স্পষ্টভাবে আছে শিশু আসামির নাম ব্যবহার করতে পারবেন না। ডেইলি স্টার একটি নিউজে একজন শিশুর নাম ঠিকানা ব্যবহার করেছে। তাকে আইডেন্টিফাই করেছে। বিষয়টি হাইকোর্টে আনার পর শুনানি শেষে রায় দেন।

শিশু আইন-২০১৩ এর ‘শিশু-আদালতের কার্যক্রমের গোপনীয়তা’ শিরোনামে ২৮ ধারায় যা বলা আছে-

(১) শিশু-আদালতে বিচারাধীন কোনো মামলায় জড়িত বা সাক্ষ্য প্রদানকারী কোনো শিশুর ছবি বা এমন কোনো বর্ণনা, সংবাদ বা রিপোর্ট প্রিন্ট বা ইলেকট্রনিক মাধ্যম অথবা ইন্টারনেটে প্রকাশ বা প্রচার করা যাইবে না, যাহা সংশ্লিষ্ট শিশুকে শনাক্তকরণে প্রত্যক্ষ বা পরোক্ষভাবে সাহায্য করে।

(২) উপ-ধারা (১) এ যাহা কিছুই থাকুক না কেন, শিশুর ছবি, বর্ণনা, সংবাদ বা রিপোর্ট প্রকাশ করা শিশুর স্বার্থের জন্য ক্ষতিকর হইবে না মর্মে শিশু-আদালতের নিকট প্রতীয়মান হইলে উক্ত আদালত সংশ্লিষ্ট শিশুর ছবি, বর্ণনা, সংবাদ বা রিপোর্ট প্রকাশের অনুমতি প্রদান করিতে পারিবে।

Check Also

আবেদন পড়েছে ৮ হাজারেরও বেশি অনলাইন নিউজ পোর্টালের

নিবন্ধনের জন্য ৮ হাজারের বেশি অনলাইন নিউজ পোর্টাল সরকারের কাছে আবেদন করেছে বলে জানিয়েছেন তথ্যমন্ত্রী …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *