সোমবার , জুলাই ২২ ২০১৯

পীরগঞ্জে ২০দিনেও বিচার পাইনি ধর্ষিতার পরিবার

পীরগঞ্জ (ঠাকুরগাঁও) প্রতিনিধি:

ঠাকুরগাঁওয়ের পীরগঞ্জে দানাজপুর নামক স্থানে এক গৃহবধূ ধর্ষনের শিকার হয়েছেন। সে দানাজপুর গ্রামের মৃত মুসলিম উদ্দিনের মেয়ে। এ বিষয়ে (গত ৭জুন ২০১৯) তার ভাই মোশারফ হোসেন স্থানীয় সেনগাঁও ইউনিয়ন চেয়ারম্যান ও গ্রাম আদালতে অভিযোগ দায়ের করেছেন।

কিন্তু ২০দিন অতিবাহিত হলেও মিলছে না কোন বিচার। সুষ্ঠ বিচারের আশায় প্রতিদিন ইউনিয়ন কাউন্সিলে দৌড়ঝাঁপ করছেন অসহায় ধর্ষিতার পরিবারের লোকজন।

অভিযোগ সূত্রে জানা যায়,গত (৬ জুন বৃহস্পতিবার) রাত ১২টার সময় ধর্ষন ও পাচারের উদ্দেশে মোশারফের বোনকে কৌশলে বাড়ি থেকে বাহির করে একই গ্রামের মৃত সুবহান আলীর ছেলে মনতাজ আলী।

বাড়ির বাহিরে মনতাজের সাথে থাকা তার সহযোগী আরও ৩জন লোক তার মুখ চেপে ধরে দূরে তাকে নিয়ে চম্পট দেয়। গ্রামের কিছু লোক পথে তাদের দেখতে পেরে তার বাড়ির লোকজনদের খবর দেন। এতে তাৎক্ষণিক ভাবে স্থানীয় জনপ্রতিনিধিদের জানানো হলে ও তার পরিবার ব্যাপক খোঁজাখুঁজি করলে প্রায় দুই ঘন্টা পরে চাপের মুখে পরে মনতাজ।

কিন্তু পাচার করতে না পেরে ধর্ষণ করে মোটরসাইকেল যোগে তার বাড়িতে রেখে যান। এ সময় ধর্ষিতার পরিবার মনতাজকে আটক করার চেষ্টা করলে সে মোটরসাইকেল নিয়ে পালিয়ে যায়।

এ বিষয়ে অভিযুক্ত মনতাজ বলেন,এই ঘটনা সম্পূর্ণ মিথ্যা বানোয়াট আমি কিছু জানিনা।

এ ব্যাপারে ৯ নং সেনগাঁও ইউপি চেয়ারম্যান মোস্তাফিজার রহমান জানান,আমার কাছে তারা অভিযোগ দিয়েছেন কিন্তু বিবাদী হাজির হচ্ছেন না। দেখি কি করা যায়।

Check Also

প্রেমপত্র দিতে গিয়ে ছেলেধরা সন্দেহে গণপিটুনি!

মৌলভীবাজারের কুলাউড়ায় বন্ধুর প্রেমিকার বাড়িতে মোবাইল ও প্রেমপত্র পৌঁছে দিতে গিয়েছিলেন বসন্ত শব্দকর (২৪)। এ …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *