বুধবার , মার্চ ২০ ২০১৯
Breaking News

ঠাকুরগাঁওয়ে আ’লীগের উপজেলা চেয়ারম্যান প্রার্থী মনোনীত যারা


ঠাকুরগাঁও প্রতিনিধি : উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে ঠাকুরগাঁও জেলার পাঁচটি উপজেলায় মনোনীত চেয়ারম্যান প্রার্থীর নাম ঘোষণা করেছে ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ।

গত ১০ ফেব্রুয়ারি রবিবার বেলা সাড়ে ১১টায় রাজধানীর ধানমন্ডিস্থ আওয়ামী লীগ সভাপতির রাজনৈতিক কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে দলটির সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের এ তালিকা প্রকাশ করেন। জানা গেছে, ঠাকুরগাঁও সদর উপজেলায় ৮জন, বালিয়াডাঙ্গী উপজেলায় ৪ জন, রানীশংকৈল উপজেলায় ৪ জন ,পীরগঞ্জ উপজেলায় ৬ জন এবং হরিপুর উপজেলায় ৪ জন চেয়ারম্যান পদে মনোনয়ন চেয়েছিলেন।

ঠাকুরগাঁওয়ের ৫ উপজেলার ভোট অনুষ্ঠিত হবে ২য় ধাপে।দ্বিতীয় ধাপে তফসিল ঘোষণা ১০ ফেব্রুয়ারি, মনোয়নপত্র দাখিল ১৯ ফেব্রুয়ারি, প্রার্থিতা প্রত্যাহারের শেষ দিন ২৮ ফেব্র্রুয়ারি এবং ভোট গ্রহণ ১৮ মার্চ । জেলার ৫টি উপজেলায় মোট ভোটার সংখ্যা ৯ লাখ ৯৫ হাজার ৭১২ জন। এর মধ্যে পুরুষ ভোটার ৫ লাখ দুই হাজার ৯শত ৯৪ জন এবং মহিলা ভোটার ৪ লাখ ৯২ হাজার সাতশত ১৮ জন।

ঠাকুরগাঁও সদর: ঠাকুরগাঁও সদর উপজেলায় দলীয় মনোনয়ন পেয়েছেন উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি অরুনাংশু দত্ত টিটো । তিনি জেলা যুবলীগের সাবেক সভাপতি এবং কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য ছিলেন। তিনি ২০১৪ সালে আওয়ামীলীগের মনোনয়নে উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দিতা করেন।

বালিয়াডাঙ্গী উপজেলা: বালিয়াডাঙ্গী উপজেলার চেয়ারম্যান প্রার্থী হিসেবে মনোনীত আহসান হাবীব বুলবুল উপজেলা আওয়ামীলীগের সহ সভাপতি। বাংলাদেশ ছাত্রলীগের প্রতিষ্ঠাতা দবিরুল ইসলামের ছেলে এবং পাড়িয়া ইউনিয়নের বর্তমান চেয়ারম্যান।বালিয়াডাঙ্গী উপজেলায় দলীয় মনোনয়ন চেয়েছিলেন দবিরুল ইসলাম এমপি’র ছোট ভাই বর্তমান উপজেলা চেয়ারম্যান আলহাজ্ব মো: সফিকুল ইসলাম এবং এমপি’র ভাতিজা উপজেলা আওয়ামী যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক আলী আসলাম জুয়েল।

পীরগঞ্জ উপজেলা: পীরগঞ্জ উপজেলায় চেয়ারম্যান পদে মনোনীত আখতারুল ইসলাম উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক । তিনি ওই উপজেলার ৬নং পীরগঞ্জ ইউনিয়নের ৩ বারের নির্বাচিত ইউপি চেযারম্যান।তিনি প্রথম চেয়ারম্যান নির্বাচিত হন ১৯৯২ সালে।২য় ২০০৩ সালে এবং সর্বশেষ ২০১১ সালে ইউপি চেয়ারম্যান নির্বাচিত হন।

রাণীশংকৈল উপজেলা: এ উপজেলায় দলীয় মনোনয়ন পেয়েছেন সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান মো: সইদুল হক । তিনি রানীশংকৈল উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি । তিনি ২০০৮ সালে উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যন ছিলেন। ২০১৪ সালে উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে প্রার্থী হয়েছিলেন।কিন্তু তার বিরুদ্ধে আওয়ামীলীগের একাধিক বিদ্রোহী প্রার্থী নির্বাচনী মাঠে থাকায় তিনি জয়ের মুখ দেখতে পারেন নি। ২০১৪ সালে নির্বাচনে আওয়ামীলীগ নেতা ও সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান বর্তমান জেলা পরিষদ সদস্য আব্দুল কাদের এবং কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের সাবেক সহ-সভাপতি মো: শাহরিয়ার আজম মুন্নাও আওয়ামীলীগের বিদ্রোহী প্রার্থী হিসেবে প্রতিদ্বন্দিতা করেন ।

হরিপুর উপজেলা: হরিপুর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান পদে মনোনয়ন প্রাপ্ত জিয়াউল হাসান মুকুল উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক।তিনি হরিপুর মহিলা কলেজের অধ্যক্ষ এবং হরিপুর কেবি কলেজের সহকারী অধ্যাপক ছিলেন।তিনি ২০১৪ সালে উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দিতা করে ৩য় স্থান দখল করেন। সেবার তার বিপক্ষে দলের একাধিক নেতা বিদ্রোহী প্রার্থী ছিলেন।

Check Also

ভূরুঙ্গামারীতে বিদ্যুৎ স্পৃষ্টে ১ জনের মৃত্যু

মোঃ জাহিদ,কুড়িগ্রাম প্রতিনিধিঃ কুড়িগ্রামের ভুরুঙ্গামারী উপজেলার পাইকেরছড়া ইউনিয়নের কুড়ার পাড় এলাকায় মঙ্গলবার(১৯ মার্চ) সকালে বিদ্যুতের …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *